বাসর রাতে নববধূ কেন স্বামীকে দুধ খাওয়ান?

বাসর রাত যে কোনও দম্পতির কাছেই সবচেয়ে স্মরণীয় মুহূর্তগুলির একটি। এই বাসর রাতকে কেন্দ্র করে পৃথিবীর বিভিন্ন অংশে প্রচলিত রয়েছে বিভিন্ন ধরনের রীতি। ভারতীয় উপমহাদেশের নানা জায়গায় বাসর রাতে বরের দুধ খাওয়ার রীতি রয়েছে।

বাসর রাতের জন্য নির্দিষ্ট ঘরে রাখা থাকে কেশর ও পেস্তা কিংবা হলুদ মেশানো দুধের গ্লাস। সাধারণত নববধূ নিজের হাতেই স্বামীকে খাইয়ে দেন সেই দুধ। কিন্তু এই রীতির ব্যাখ্যা কী? কেন সদ্য করা বিয়ে করা পুরুষটি দুধ খান বাসর রাতে? কেন নববধূও খান না দুধ? আসুন, জেনে নেওয়া যাক। ভারতীয় গণমাধ্যম এবেলা এমন খবর প্রকাশ করেছে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, বাসর রাতে দুধ পানের রীতি অতি প্রাচীন। আসলে প্রাচীন যুগ থেকেই ভারতীয় কৃষি ও অর্থব্যবস্থায় এবং দৈনন্দিন জীবনে গোদুগ্ধের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। সেই কারণে গোরুর দুধকে অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়। অনেক সামাজিক অনুষ্ঠানেই তাই গোরুর দুধের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা লক্ষ করা যায়।

কোনও রকমের অভিষেক অনুষ্ঠানে (যেমন শ্বশুরবাড়িতে নববধূর প্রথম পদার্পণ) ব্রাহ্মমুহূর্তে উনুনে বসানো দুধ উথলে উঠলে তা শুভ লক্ষণ বলে মনে করা হয়। আলতা মেশানো দুধের থালায় পা রেখেই শ্বশুরবাড়িতে নিজের যাত্রা শুরু করেন নতুন বউ।

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
1

Leave a Reply